1. shoheltanvir31@gmail.com : admin :
  2. zoyarah639@gmail.com : Zoya Rahman : Zoya Rahman
  3. abdullahjubayer40@gmail.com : abdullah al jubaye : abdullah al jubaye
  4. Aakilkhan9652@gmail.com : aysha khanom : aysha khanom
  5. innovahcare.khu@gmail.com : Faisal Ahmad : Faisal Ahmad
  6. officialjahid3@gmail.com : Jahid Khondoker : Jahid Khondoker
  7. simasum786@gmail.com : Md Sirazul Islam Masum : Md Sirazul Islam Masum
  8. shuvo67@Gmail.com : Naim Sarkar : Naim Sarkar
  9. sohelranahiru@gmail.com : shohel rana : shohel rana
  10. shohanrahman4151@gmail.com : shohan Rahman : shohan Rahman
64dnewsbd - 64 D News BD % জাতীয় 64 D News BD
বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২১, ১১:০৩ অপরাহ্ন

এক মামলায় জামিন, অপর দুই মামলার শুনানি ১৫ ডিসেম্বর

  • পোস্টকৃত সময় মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৮ Time View

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ মঙ্গলবার কাজলকে জামিনের এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে, তার বিরুদ্ধে বাকী দুটি মামলার শুনানির জন্য আগামী ১৫ ডিসেম্বর দিন ধার্য করে আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী রিপন বড়ুয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারোয়ার হোসেন বাপ্পি।

যে মামলায় কাজল জামিন পেলেন, সেটি দায়ের করা হয়েছিল শেরেবাংলা নগর থানায়। হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীর চর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরো দুটি মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। ফলে এখনই মুক্তি পাচ্ছেন না তিনি।

যুব মহিলা লীগের নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়ার ওয়েস্টিন হোটেলকেন্দ্রিক কারবারে জড়িতদের নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে গত ৯ মার্চ ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় মানবজমিনের প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরীসহ ৩২ জনের বিরুদ্ধে এই মামলা করেন মাগুরা-১ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর।

ওই মামলা হওয়ার পর আসামির তালিকায় থাকা শফিকুল ইসলাম কাজল প্রায় দুই মাস নিখোঁজ ছিলেন। পরে গত ২ মে যশোরের বেনাপোল সীমান্ত থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে বিজিবি।

যশোর থেকে ঢাকায় আনার পর গত ২৩ জুন কাজলকে শেরেবাংলা নগর থানার ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিচারকের মুখোমুখি করা হয়। হাকিম আদালত সেদিন কাজলের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে।

এরপর গত ২৪ আগস্ট ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতও কাজলের জামিন আবেদন নাকচ করলে তিনি ৮ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টে আবেদন করেন। শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট গত ১৯ অক্টোবর রুল জারি করে।

এদিকে সাংসদ শিখর মামলা করার পর ১০ ও ১১ মার্চ হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীর চর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরো দুটি মামলা হয়। যার মধ্যে একটির বাদী যুব মহিলা লীগের নেত্রী ইয়াসমিন আরা ওরফে বেলী।

সেয়ার করুন সোসাল মিডিয়াতে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2019 64dnewsbd.com
Devloped By ZS Web Soft